দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম থেকে চবি’তে কিভাবে আসবে ?

দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম থেকে চবি’তে কিভাবে আসবে ?
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সবুজ ক্যাম্পাসে তোমাকে স্বাগতম😊
.
আগামী ২৭ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে চবি ভর্তি পরীক্ষা। চবি হাটহাজারী থানার অন্তর্ভুক্ত।
শহর থেকে এর দূরত্ব ২২ KM
.
👉 চট্টগ্রাম রেল স্টেশন অথবা বাস টার্মিনাল থেকে বের হয়ে সোজা চলে যাবা নিউ মার্কেট (কাউকে বললে দেখিয়ে দিবে)। নিউ মার্কেট থেকে ৩ নাম্বার বাস দিয়ে(ভাড়া ২০ টাকা) অথবা দ্রুত যান (ডিরেক্ট বাস ভাড়া ৩০ টাকা)
চবি ক্যাম্পাসের ১ নাম্বার গেটে নামবা। সেখান থেকে সিএনজি দিয়ে মুল ক্যাম্পাসে(ভাড়া ৫ টাকা) আসবা।
.
👉 উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে চবি এর শাটল ট্রেনে করে ফ্রিতে বিশ্ববিদ্যালয় এ আসতে পারবে। ৩ টি ট্রেন প্রতিদিন প্রায় ২০ বার আসা যাওয়া করে ভর্তি পরীক্ষা কালীন সময়ে। এটা নিউমার্কেট (চট্টগ্রাম বটতলি ষ্টেশন থেকে ক্যাম্পাসে যাতায়াত করে। ভার্সিটি ট্রেনের শিডিউল পরে জানিয়ে দেয়া হবে।)
.
#ঢাকা থেকে যারা চট্টগ্রাম আসবেন:
★ঢাকা ও নরসিংদী থেকে চট্টগ্রাম আসার জন্য ট্রেন সমুহঃ
১। সুবর্ণ এক্সপ্রেস....(ঢাকা থেকে দুপুরে ছাড়বে চিটাগাং রাতে পৌছাবে।
২। সোনার বাংলা এক্সপ্রেস......(সকাল ৭ টায় ছাড়বে দুপুর ১২ টায় চট্টগ্রাম পৌছাবে।)
৩।মহানগর প্রভাতী......(সকাল ৮ টায় ছাড়বে চট্টগ্রাম বিকাল ৩ টায় পৌছাবে)
৪।মহানগর গোধুলী......(বিকাল ৪ টায় ছাড়বে চট্টগ্রাম রাত ১১ টায় পৌছাবে)
৪।মহানগর এক্সপ্রেস......(রাত ৯ টায় ছাড়বে চিটাগাং ভোর ৪ টা-৪.৩০ এ নামিয়ে দিবে।)
৫।মহানগর তূর্ণা.......(রাত ১১ টায় ছাড়বে চট্টগ্রাম ভোর ৬ টায় পৌছাবে)
৬। চট্টলা.......(দিনের মেইল ট্রেন দুপুর ১১ টায় ছাড়বে চট্টগ্রাম রাত ৯--১০ টায় পৌছাবে)
৭। চিটাগাং মেইল......(রাতের মেইল ট্রেন রাত ১০.৩০ এ ছাড়বে চট্টগ্রাম সকাল ৮ টায় পৌছায়
{(সুবিধা অনুযায়ী ট্রেনে করে আসো। ট্রেন যার্নি আমার খুব প্রিয়। যারা ট্রেনে আসবা তারা ফেনীর পর মিরেরসরাই হতে চিটাগাং ভাটিয়ারী পর্যন্ত ট্রেনের বাম পাশে বিশাল উচুঁ ও বিস্তৃত পাহাড় তোমাদের মন জয় করে নিবে কারণ পাহাড়ের পাশ দিয়ে এগিয়ে চলেছে ট্রেনের রেলপথ।আর বাংলাদেশের ঝর্ণার রাণী বলা হয় মিরেরসরাই ও সীতাকুন্ড পাহাড়কে কারণ মিরেরসরাই পাহাড়ে রয়েছে বিখ্যাত অপরুপ সৌন্দর্য ও অনেক উচুঁ ঝর্ণা যেমন:- খৈয়াছড়া, নাপিত্তাছড়া, কমলদাহ সহ আরো অসংখ্য নান্দনিক ঝর্ণা আর সীতাকুন্ড পাহাড়ে রয়েছে নান্দনিক সহস্রধারা ও সুপ্তধারা ঝর্ণা। মিরেরসরাই পর সীতাকুন্ড পাহাড়ের চূড়ায় ছোট্ট একটি ঘর দেখা যায় ওইটা মন্দির হিন্দুদের তীর্থ স্থান বলা হয়। অনেকেই সাঃজ্ঞান এ পড়েছো। পাহাড়ে মেঘ থাকলে মন্দির নাও দেখতে পার ট্রেন থেকে।)}
★ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের বাসসমূহ(টিকেট পাবেন সায়দাবাদ, যাত্রাবাড়ী থেকে)
১। হানিফ পরিবহন
২। শ্যামলী পরিবহন
৩। এস আলম পরিবহন
৪। সৌদীয়া পরিবহন
৫। বিআরটিসি
৬।স্টার লাইন
৭। সোউদিয়া
৮।দেশ ট্রাভেলস
৯। আরো অনেক পরিবহন আছে (সব কোম্পানির বাস চিটাগাং আসে)
.
#সিলেট থেকে চট্টগ্রাম
★ট্রেনসমূহঃ
১।পাহাড়িকা এক্সপ্রেস
২।উদয়ন
.
★যে কোন জায়গা থেকে বাসে করে চিটাগাং আসতে পারেন।
.
#রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, বরিশাল, দিনাজপুর, যশোর, বগুড়া, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, চাঁদপুর, ফরিদপুর, টাঙ্গাইল থেকে আসার জন্য
★ঢাকা গিয়ে ঢাকা থেকে আসতে হবে।(ট্রেনে আসলে)
কারণ এইসব অঞ্চল থেকে চিটাগাং কোন ট্রেন নেই।
★তবে আপনারা বাসে আসলেই ভালো ওইসব অঞ্চল থেকে যে কোন বাস ডিরেক্ট চিটাগাং আসে।
.
#যারা নেত্রকোণা, ময়মনসিংহ, জামালপুর,শেরপুর, গৌরিপুর থেকে আসবেন তারা ময়মনসিংহ রেল ষ্টেশন থেকে
★(বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনে আসতে পারেন চিটাগাং)
.
★ যে কোন বাসে করে চিটাগাং আসতে পারেন।
.
#কিশোরগঞ্জ থেকে যারা আসবেন
★ট্রেনসমুহঃ
১।বিজয় এক্সপ্রেস
২।এগার সিন্ধু
.
★যে কোন বাসে করে চিটাগাং আসতে পারেন।
.
#ভৈরব, বি-বাড়ীয়া, আখাউড়া, কুমিল্লা, লাকসাম, ফেনী থেকে আসার জন্য ট্রেন সমূহঃ
★ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেন গুলো ধরতে পারেন।
এবং নেত্রকোণা ও কিশোরগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনগুলো দিয়ে আসতে পারেন।
.
★যে কোন বাসে করে চিটাগাং আসতে পারেন।
(বিঃদ্রঃ *ট্রেন এবং বাসের টিকিট অগ্রিম কেটে রাখতে হবে। ট্রেনে যার্নি এর ৯ দিন আগে টিকিট পাওয়া যায়। ঐদিনই টিকেট শেষ হয়ে যায় ৷
👉 ২৬ তারিখের ট্রেনের টিকেট আজকে সকালে ছেড়ে শেষ হয়ে গেছে অলরেডি ....বাসের টিকেট কাটো তাড়াতাড়ি ।
ট্রেনের টিকিট যার্নি দিন থেকে মিনিমাম ৯ দিন আগে টিকিট কেটে রাখবা। ঢাকা থেকে যারা আসবা তারা ৭-৯ দিন আগেই টিকিট কেটে রাখবা।
**বাসে যার্নির ও আগে টিকিট কেটে রাখতে হবে।)
★★★শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রেখে দাও এবং বন্ধুদের মেনশন করে জানিয়ে দাও।