(NSl) এর ওয়েচার কনেস্টবল পদের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্নের সম্পর্ণ সমাধানঃ- November 2019

(NSl) এর ওয়েচার কনেস্টবল পদের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্নের সম্পর্ণ সমাধানঃ-
সাধারণ জ্ঞান অংশ সমাধানঃ
১. মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কয়টি। ৩ জন সেক্টর কমান্ডারের নাম লিখুন?
উত্তরঃ মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর ১১ টি।
৩ জন সেক্টর কমান্ডারের নামঃ
ক) মেজর মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম- ১ নং সেক্টর
খ) মেজর খালেদ মোশাররফ- ২ নং সেক্টর
গ) মেজর কে.এম. শফিউল্লাহ- ৩ নং সেক্টর
২. বাংলাপিডিয়া কার উদ্যোগে গঠিত হয়েছে?
উত্তরঃ এশিয়াটিক সোসাইটি উদ্যোগে গঠিত হয়েছে বাংলাপিডিয়া
৩. ধানসিঁড়ি কোন জেলায় অবস্থিত?
উত্তরঃ ঝালকাঠিতে অবস্থিত
৪. স্থানীয় সরকার সর্বনিম্ন স্তর কোনটি?
উত্তরঃ ইউনিয়ন পরিষদ
৫. ৮.৩০ মিনিটে ঘন্টার কাটা ও মিনিটের কাটার পার্থক্য কত ডিগ্রী?
উত্তরঃ ৭৫ ডিগ্রি
৬. NSI এর পূর্ণরূপ লিখুন?
উত্তরঃ National Security Intelligence
বাংলা অংশ সমাধানঃ
১. বাংলা সাধু ও চলিত ভাষার ৫ টি পার্থক্য লিখুন।
ক) যে ভাষায় সাধারণত সাহিত্য রচিত হয় এবং যা মার্জিত ও সর্বজনস্বীকৃত, তাই সাধু ভাষা। অন্যদিকে শিক্ষিত লোক সাধারণ কথাবার্তায় যে ভাষা ব্যবহার করে থাকে, তা-ই চলিত ভাষা।
খ) সাধু ভাষা ব্যাকরণের সুনির্দিষ্ট ও সুনির্ধারিত নিয়মের অনুসারী। আর চলিত ভাষার সুনির্ধারিত ব্যাকরণ আজও তৈরি হয়নি।
গ) সাধু ভাষা গুরুগম্ভীর ও আভিজাত্যের অধিকারী। অপরদিকে চলিত ভাষা সহজ ও স্বাভাবিক। এ ভাষা মানুষের মনোভাব প্রকাশে উপযোগী।
ঘ) সাধু ভাষার কাঠামো সাধারণত অপরিবর্তনীয়। কিন্তু চলিত ভাষা পরিবর্তনশীল।
ঙ) সাধু ভাষা নাটকের সংলাপ, আলাপ-আলোচনা ও বক্তৃতায় তেমন উপযোগী নয়। আর চলিত ভাষা নাটকের সংলাপ, আলাপ-আলোচনা ও বক্তৃতায় বেশ উপযোগী।
২। ভাব সম্প্রসারণ "পুষ্প আপনার জন্য ফোটে না।
মূল ভাবঃ ফুল প্রকৃতির পবিত্রতম সৃষ্টি।সৌরভে-সৌন্দর্যে জগৎকে আমোদিত করাই তার কাজ।তাই ফুলের মর্যাদা সর্বত্র স্বীকৃত।
সম্প্রসারিত ভাবঃ
প্রিয়জনের আসর থেকে দেবতার প্রাঙ্গণ সর্বত্রই ফুলের সমাদর।ফুল ছাড়া আমাদের কোন পূজা,কোন মাঙ্গলিক অনুষ্ঠান হয় না।ফুল কবির কবিতার বিষয়বস্তু,নারীর সৌন্দর্য বিধায়ক,ফুল মিলন উৎসবের অঙ্গ,ফুল জনমে ও মরণেও সমান উপযোগী।মানুষের জীবনব্যাপি নানা অনুষ্ঠানে ফুলের সংযোগ।এভাবেই ফুল অপরকে আনন্দদানের মাধ্যমে নিজেকে সার্থক করে চলেছে।
ফুলের মতন মানুষের জীবনও পরার্থে উৎসর্গকৃত হওয়া উচিৎ।এতেই জীবনের সার্থকতা।মানুষ সামাজিক জীব ,সকলকে নিয়ে তাকে বাঁচতে হয়।মানুষে-মানুষ
ে মিলনের ব্রতকে সম্পূর্ণ করতে হয় মানুষকে।যে মানুষের মধ্যে কল্যাণ আদর্শ নেই,সে মানুষ ক্ষুদ্র,খন্ড।জগতের কোন কল্যাণ সাধনই তার পক্ষে সম্ভব নয়।মানুষ সুন্দর,মানুষ মনুষ্যত্বের সৌরভ বহন করে।ঠিক ফুলের মতই মানুষ নিজের নয়,বিশ্ব-নিখিলের।ফুল যেমন নিজেকে বিলিয়ে সার্থক হয়,মানুষেরও উচিত মানব সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে সার্থক হওয়া,—হৃদয় কুসুমকে মনুষ্যত্বের গৌরবে গৌরবান্বিত করা।
৩। মশার উপদ্রব নিধনে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য সংবাদপত্রে একটি পত্র লিখুন।
তারিখ ২২/১১/২০১৯
বরাবর,
সম্পাদক
দৈনিক প্রথম আলো
কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫।
বিষয়ঃ সংযুক্ত পত্রটি প্রকাশের জন্য আবেদন।
নিবেদক মোঃ আবু জাফর, মিরপুর ১, ঢাকা।
মশার উপদ্রব নিধনে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য
জনাব,
আপনার বহুল প্রচারিত, 'দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় জনগুরুত্বপূর্ণ পত্রটি প্রকাশ করলে বিশেষভাবে বাধিত হবো।
রাজধানী ঢাকার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি এলাকা মিরপুর ১। অসংখ্য শিল্পকারখানা, হাসপাতাল, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা এই এলাকায় অবস্থিত। এখানে প্রায় ৩১ লক্ষ মানুষের বসবাস। কিন্তু সম্প্রতি এই এলাকায় মশা মারাত্মক পরিস্থিতিতে উপনীত হয়েছে। এই ভোগান্তি থেকে রেহাই পাচ্ছেনা অত্র এলাকার মানুষ । এছাড়া নানান দুর্যোগ দুর্বিপাকে, মশা বৃদ্ধির কারণে এলাকাবাসী প্রকৃত নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
এ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য উল্লেখযোগ্য কোনো কার্যক্রম দেখা যাচ্ছে না। জনজীবনে যাবতীয় সমস্যার মধ্যে এটিও এখন একটি মারাত্মক সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।
মশা নিধনের জন্য প্রতি বছর সিটি কর্পোরেশনের বিরাট অঙ্কের টাকা বরাদ্দ থাকে।
কর্পোরেশনের অধীনে মশা নিধনের জন্য বেতনভুক্ত কর্মচারীও রয়েছে অনেক। এরপরও যদি মানুষ মশার অত্যাচার থেকে রক্ষা না পায়। তবে তা উদ্বেগের বিষয় বৈকি। উন্নত বিশ্বে এমনটি ভাবাই যায় না। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে মশাবাহিত রোগ চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে অসংখ্য মানুষ দীর্ঘদিন ভুগেছে। বর্তমানে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ডেঙ্গুজ্বর।তাই মাসে একবার হলেও নিজেদের বাসাবাড়ি এবং ভবনের আশপাশ পরিষ্কার করা মশক নিধনের দ্রব্য দেয়া জরুরি।
তাই মশার ক্ষেত্র যেমন ধ্বংস করতে হবে, তেমনি মশা যেন আর না জন্মাতে পারে সে ব্যাপারেও দায়িত্বশীল ভূমিকা কাম্য।মশার উপদ্রব্য ছিটিয়ে আমাদেরকে ডেঙ্গু, চিকনগুনিয়া সহ বিভিন্ন অসুখ হতে রক্ষা করতে সাহায্য করবেন বলে আশা করি।
এপরিস্থিতিতে এলাকাবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রা স্থবির হয়ে পড়েছে।
মালিবাগ এলাকার বাসিন্দারা গত ৬ মাস যাবৎ উপর্যুক্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে ব্যর্থও হয়েছেন। কারণ তারা প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেননি।
এমতাবস্থায় উল্লিখিত সমস্যার সমাধানকল্পে এলাকাবাসী ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।
বিনীত এলাকাবাসীর পক্ষে
আবু জাফর
1. Transformation of sentence.
2. Paragraph writing:
Winter Morning
Winter is the coldest season of the year. A morning in winter is misty and cold. There is dense fog in everywhere. Things even at a little distance can hardly be seen. Everything looks hazy. This causes disruption to the communication system. Dew drops fall at night. Sometimes cold waves blow. It causes much sufferings to the children and old people. They suffer from cold and other diseases. Village people gather straw and dry leaves to make fire to warm themselves. The old and children bask in the sun. Usually, people get up late. In a winter morning, people in Bangladesh enjoy different kinds of cake. Delicious sweetmeats are also prepared with date juice. But a winter morning is a curse for the poor. They suffer much for want of warm clothes. They are seen shivering in cold. Sometimes the news of death from the bitter cold is seen in the newspaper. But the rich enjoy a winter morning to a great extent. They have a variety of warm clothes. Besides, they enjoy delicious foods in a winter morning. However, the scene of a winter morning disappears as the day advances. A winter morning is pleasant for someone's and unpleasant for the other.
গণিত অংশ সমাধানঃ
১। একটি স্কুলে ড্রিল করার সময় ৮,১০ বা ১২ টি লাইন করা যায়। ঔ স্কুলে অন্তত পক্ষে কত জন ছাত্রছাত্রী ছিল?
সমাধানঃ
৮,১০,১২ এর ল. সা. গু =১২০
৩৬০০,১২০ দ্বারা বিভাজ্য ও পূর্ণ বর্গ। কিন্তু ২৪০০,১২০০,৩০০০,১২০ দ্বারা বিভাজ্য কিন্তু পূর্ণ বর্গ নয়।
উত্তর ১২০
২। একটি বাঁশের ২/৫ অংশ লাল, ১/৪অংশ কাল, ১/৩ অংশ সবুজে আবৃত এবং অবশিষ্ট অংশ ২ মিটার লাল হলে বাশটির দৈর্ঘ্য কত?
সমাধানঃ
বাঁশের দৈর্ঘ্য=(৫*৪*৩) x
= ৬০x
মোট অংশ=(২/৫+১/৪+১/৩)*৬০x
=৫৯ x
অবশিষ্ট, ৬০ x-৫৯x = ২
বা, x = ২
বা, ৬০x = ১২০মিটার।
উত্তরঃ ১২০
৩। ১০০০ টাকা ক ও খ ১:৪ অনুপাতে ভাগ করে নেয়। খ-এর অংশ সে এবং তার মা ও মেয়ের মধ্যে ২:১:১ অনুপাতে ভাগ করে। মেয়ে কত টাকা পাবে?
সমাধানঃ
ক ও খ এর অনুপাতদ্বয়ের যোগফল = ১+৪=৫ এই ৫ অংশ = ১০০০; তাহলে, খ এর ৪ অংশ = ৪×২০০= ৮০০ ক এর ১ অংশ = ১×২০০= ২০০ এখন, খ তার অংশের ৮০০ টাকা সে নিজে এবং মা এবং মেয়ের মাঝে ভাগ করে দেয় ২ঃ১ঃ১ অনুপাতে। আবার, অনুপাতগুলোর যোগফল = ২+১+১ = ৪ খ নিজেই নেয় = ২/৪×৮০০ = ৪০০ খ'র মা পায় = ১/৪×৮০০ = ২০০ খ'র মেয়ে পায় = ১/৪×৮০০ = ২০০
উত্তর ২০০
৪. x+1/x=√3 হলে x^3+1/x^3=কত?
=(x+1/x)3 -3*x*1/x*(x+1/x)
=(√3)3-3√3
=3√3-3√3
=0
Ans. 0