ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সি ইউনিট তথা ব্যবসায় শিক্ষার A to Z


,,
👉 গ ইউনিট এ কারা পরীক্ষা দেয় --- গ ইউনিটে শুধুমাত্র তারাই পরীক্ষা দেয় যাদের উচ্চ মাধ্যমিক ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ছিল৷
👉 শর্ত -- ২০১৪,১৫, ১৬ এবং ১৭ সালে এসএসসি কিন্তু ২০২০ সালে এইচএসসি তে উত্তীর্ণ হয়েছে এমন সকলেই আবেদন করতে পারবে।
👉 শর্ত -- এসএসসি এবং এইচএসসি মিলে রেজাল্ট নূন্যতম ৭.৫ থাকতে হবে এবং এসএসসি ও এইচএসসি কোনটায় ৩.৫ এর নিচে থাকলে আবেদন করতে পারবে না।
👉পরীক্ষা পদ্ধতি ---
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ২০০ নাম্বারের পরীক্ষা হয়।
এর মধ্যে এসএসসি ও এইচএসসি র রেজাল্টের উপর ৮০ মার্কস
বাকি ১২০ এর মধ্যে দুইটা ভাগ --
১. এমসিকিউ - ৭৫
২. রিটেন - ৪৫
👉 এমসিকিউ প্রতিটি প্রশ্নের মান ১.২৫। এবং ৬০ টি এমসিকিউ আসে (১.২৫× ৬০) = ৭৫
👉 নেগেটিভ মার্কিং -- প্রতি ৪ টি ভুল উত্তরের জন্য একটি সঠিক উত্তর কাটা। মানে একই ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ কাটা।
👉 এমসিকিউ যে সাব্জেক্টে থেকে প্রশ্ন হয় ---
১. বাংলা ১২ টি প্রশ্ন (১.২৫×১২) = ১৫ নাম্বার
২. ইংরেজি ১২ টি প্রশ্ন (১.২৫× ১২) = ১৫ নাম্বার
৩. হিসাববিজ্ঞান ১২ টি প্রশ্ন (১.২৫× ১২) = ১৫
৪. ব্যবসায় নীতি ও প্রয়োগ ১২ টি প্রশ্ন (১.২৫× ১২) = ১৫ নাম্বার
৫. মার্কেটিং বা ফিনান্স ও ব্যাংকিং থেকে যেকোনো একটি ১২ টি প্রশ্ন (১.২৫×১২) = ১৫ নাম্বার
👉 রিটেন ---
বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ ৫ টি ৫ নাম্বার
ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ ৫ টি ৫ নাম্বার
বিষয়ভিত্তিক সংক্ষিপ্ত প্রকাশ ইংরেজি ৫ টি ৫ নাম্বার
Precise ১ টি ৫ নাম্বার
বাংলায় সংক্ষিপ্ত রচনা ৫ নাম্বার
৫ টি আবশ্যিক বিষয় থেকে প্রশ্ন (৫×৪) = ২০
👉 পাশ নাম্বার --
ইংরেজিতে ৫ সহ এমসিকিউয়ে ৩০ না পেলে রিটেন খাতা দেখা হবেনা৷
রিটেনে ১২ তে পাশ তবে এমসিকিউ ও রিটেন মিলে মোট ৪৮ এ পাশ
👉 সিট -- সি ইউনিটে ১২৫০ টি সিট রয়েছে।
🙂 এতক্ষণ থেকে তথ্য দিয়েছি শুধু । এখন আপনার কিছু প্রশ্নের উত্তর দিবো৷
ভাইয়া সি ইউনিটে চান্স পাওয়া নাকি সবচেয়ে কঠিন কি বলেন আপনি??
হ্যাঁ। এই কথাটা সত্যি ছিল ২০১৪-১৫ সেশন পর্যন্ত। এর পর প্রতি বছরেই সি ইউনিটের প্রতিযোগিতা কমছে। আচ্ছা দাঁড়াও অযথা আমার কথা কেন বিশ্বাস করবে। তথ্য দিয়ে দেখাই ---
👉 ২০১৩-১৪ সেশনে ও সি ইউনিটে ৪৫০০০+ পরীক্ষা দিয়েছিল। এবং তখন ১০৭৫ এর মতো সিট ছিল৷
👉 ২০১৪-১৫ থেকে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমতে থাকে তখন পরীক্ষা দেয় ৪২০০০ এর মতো।
সবশেষ ২০১৯-২০ সেশনে পরীক্ষা দেয় ২৮,৯৫৮। আবার এখন মোট সিট ও বেড়ে ১২৫০
অর্থাৎ গত বছর প্রতি সিটের জন্য ২৩ জন পরীক্ষা দিয়েছে।
👉 সবকিছু ঠিক থাকলে এবার হয়তো ২৫০০০ এর বেশি পরীক্ষা দিবেনা এবং সিট প্রতি হয়তো ২০ জন প্রতিযোগী থাকবে।
👉 প্রতিযোগিতা যেহেতু দিন- দিন কমছে তাহলে ত এটা আপনাকে মানতে এবং বিশ্বাস করতে হবে যে সি ইউনিট সহজ। আবার প্রশ্ন যেহেতু এইচএসসির বই থেকে হয় তাহলে এইচএসসিতে ভালো করে পড়লেই অনেক এগিয়ে থাকা যায়।
সবশেষ একটা কথা বলবো পরিশ্রম নয় বরং পরিকল্পিত শ্রম তোমাকে সফল করবে।
.......

Followers

Follow Us Email